দেবীর মহাগৌরী রূপের ইতিবৃত্ত, জেনে নিন

নিউজ দুনিয়া ২৪, ওয়েব ডেস্ক:অষ্টমীতে দেবী মহা গৌরীর পূজো করা হয়। তিনি নবদুর্গার অন্যতম ও দেবী দুর্গার অষ্টম শক্তি। সাদা পোশাক পরিহিতা, চার হাত বিশিষ্টা দেবীর বাহন ষাঁড়। মা শান্ত প্রকৃতির। এই দেবীর আট বছর বয়স বলে মানা হয়।

পুরাণ অনুযায়ী, হিমালয় কন্যা ছিলেন গৌর বর্ণা। শিবের জন্য কঠোর তপস্যা করে রৌদ্রে তিনি কালো হয়ে যান। মহাদেব দেবী পার্বতীর তপস্যায় সন্তুষ্ট হয়ে যখন গঙ্গাজল দিয়ে তাকে স্নান করান, তখন তিনি হয়ে ওঠেন গৌরবর্ণা। তার এই রূপের নাম হয় মহাগৌরী

প্রচলিত কাহিনী:

হিন্দুদের বিশ্বাস, নবরাত্রির অষ্টম রাতে তাঁর পুজো করলে সব পাপ ধুয়ে যায় এঁনার পুজো করলে সর্বশক্তিমান হয়, গৃহ কলহ নাশ হয় এবং ভক্ত সর্বপ্রকার পবিত্র ও অক্ষয় পুণ্যের অধিকারী হয়।

দেবী মহা গৌরীর রূপ
মহা গৌরী গায়ের রং শ্বেতবর্ণ, তিনি শান্ত প্রকৃতির দেবী। আট বছরের বালিকার রূপে তিনি পূজিত হন। দেবীর এক হাত শোভিত বরাভয় মুদ্রায়। বাকি তিন হাতে থাকে পদ্ম, ত্রিশূল এবং ডমরু।

মায়ের পুজোয় কোন ভোগ
অন্যান্য ভোগের পাশাপাশি এদিন দেবী মা-কে ভোগে নারকেল দেওয়া হয়।
এটাই দেবী মহা গৌরীর প্রধান ভোগ। ‌‌
🙏🙏🙏🙏🙏🙏🙏🙏

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *